বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৫ জুলাই ২০২০

ফলিত গবেষণা বিভাগের সাফল্য

১. ফলিত গবেষণা বিভাগ বিগত তিন বছরে ১০৫ টি অগ্রগামী কৌলিক সারির ভ্যালিডেশন ট্রায়াল বাস্তবায়ন করেছে যার মধ্য থেকে ১৭ টি উচ্চফলনশীল ধানের জাত জাতীয় বীজ বোর্ড কর্তৃক অনুমোদন লাভ করেছে।
 
২. উৎপাদন প্রযুক্তি উদ্ভাবনের লক্ষ্যে ২ টি উৎপাদন প্রযুক্তির ভ্যালিডেশন ট্রায়াল বাস্তবায়ন করেছে যেগুলো কৃষক পর্যায়ে দ্রুত সম্প্রসারণের জন্য ব্রি থেকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। 
 
৩. ব্রি’র উদ্ভাবিত জাত দ্রুত সম্প্রসারণের জন্য বিগত তিন বছরে ১৭৮১ টি প্রদর্শনী (বীজ উৎপাদন ও সম্প্রসারণ কর্মসূচী) বাস্তবায়ন করেছে যার মাধ্যমে প্রায় ২৩৪ টন ধান উৎপাদন হয়েছে। উৎপাদিত ধানের মধ্য থেকে কৃষকগণ নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় প্রায় ৫১ টন বীজ হিসেবে সংরক্ষণ করেছে। 
 
৪. এছাড়াও, পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপের মাধ্যমে সারা দেশে ব্রি উদ্ভাবিত আধুনিক ধানের জাতের ১২০০ টি উপযোগিতা পরীক্ষণ (Head to Head Adaptive Trial) বাস্তবায়ন করা হয়।
 
৫. আধুনিক ধান উৎপাদনে কৃষকের জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় মোট ১৬০ টি কৃষক প্রশিক্ষণ বাস্তবায়ন করা হয়েছে যার মাধ্যমে মোট ৫১৮৮ জন কৃষক এবং ৪১২ জন উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।
 
৬. উচ্চ ফলনশীল জাতের প্রদর্শনীর উপর মোট ১৮৫ টি মাঠ দিবস বাস্তবায়ন করা হয়েছে এবং এসব অনুষ্ঠানে বিজ্ঞানী, কৃষক, সম্প্রসারণ কর্মকর্তা, স্থানীয় প্রশাসন ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ মোট ২৪,৪৫০ জন উপস্থিত ছিলেন। 
 
৭. ফলিত গবেষণা বিভাগের তত্ত্বাবধানে সম্প্রতি উদ্ভাবিত এবং জনপ্রিয় ধান জাতের প্রায় ২০ টন মানঘোষিত বীজ ব্রি গবেষণা মাঠে উৎপাদন করা হয়েছে যা দেশের বিভিন্ন এলাকায় ব্রি ধান জাত সম্প্রসারণের কাজে নিয়োজিত কৃষক ও স্টেকহোল্ডারদের নিকট সরবরাহ করা হয়েছে।
 
৮. ফলিত গবেষণা বিভাগ ফলিত গবেষণা বিভাগ কর্তৃক বিগত তিন বছরে দেশের বিভিন্ন স্থানে মোট ৩০ টি কৃষক বীজ কেন্দ্র স্থাপণ করা হয়েছে।


Share with :

Facebook Facebook